রেজি তথ্য

আজ: মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ১৩ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

দাম উল্লেখ না করায় বিভিন্ন অনিয়মের কারণে এস আলম গ্রুপসহ তিন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের তলব

ডেক্স নিউজ

ভোজ্যতেল সরবরাহে মিল পর্যায়ে নানা অনিয়মের কারণে সরবরাহকারী তিনটি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের তলব করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। প্রতিষ্ঠান তিনটি হলো – এস আলম গ্রুপ, টি কে গ্রুপ, ও বাংলাদেশ এডিবল অয়েল (রূপচাঁদা ব্র্যান্ড)।
সোমবার (২৮ মার্চ) ভোক্তা অধিদপ্তর থেকে এ বিষয়ে তিনটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের চিঠি দেওয়া হয়েছে।
এসওতে (সেলস অর্ডার) দাম উল্লেখ না করা, উৎপাদন কমিয়ে রাখা, সরবরাহে গাফিলতি, খুচরা মূল্য বেশি প্রিন্ট করে রাখাসহ বিভিন্ন অনিয়মের কারণে এ তিন প্রতিষ্ঠানকে চিঠি দিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।
ভোক্তা অধিকারের পাঠানো ওই চিঠিতে প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের অনিয়মের ব্যাখ্যা দিতে আগামী ৩০ মার্চ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।
বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার ।
অধিদপ্তরের পাঠানো ওই চিঠিতে বলা হয়, চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানার মইজ্জারটেকে এস আলমের কারখানায় গত ১৩ মার্চ পরিদর্শন করা হয়। ওইদিন কারখানায় ড্রামের গায়ে পণ্যের নাম, মেয়াদ ও মূল্য উল্লেখ ছিল না। তেল রিফাইনারি ও বোতলজাতকরণ শাখা বন্ধ ছিল। ৫ লিটারের মোড়কে সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৮৩৫ টাকা লেখা ছিল।
গত ২৭ মার্চ দ্বিতীয়বার পরিদর্শনে গেলে সরবরাহ আদেশ বা এসওতে একক মূল্যের উল্লেখ নেই— এমন অনিয়ম দেখা যায়। এ বিষয়টির ব্যাখ্যা চেয়ে প্রতিষ্ঠানটির একজন প্রতিনিধি তলব করা হয়েছে।
এদিকে নারায়ণগঞ্জে টিকে গ্রুপের কারখানায় গত ফেব্রুয়ারি মাসে ২৭ হাজার ৩৭১ টন পাম তেল বাজারজাত করলেও চলতি মাসে প্রতিষ্ঠানটি ২১ হাজার ১১৯ টন তেল বাজারজাত করে। পাশাপাশি রূপচাঁদা ব্র্যান্ড গতমাসে বাজারে ১৪ হাজার ৩৮ টন তেল সরবরাহ করলেও চলতি মাসে ৮ হাজার ২৬৩ টন তেল সরবরাহ করে। প্রতিষ্ঠান দু’টির তেল সরবরাহ কমানোর ব্যাখ্যা চেয়ে আগামী ৩০ মার্চ প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিকে হাজির হতে বলা হয়েছে।
ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একাধিক টিম ভোজ্যতেল পরিশোধনকারী বিভিন্ন কারখানা পরিদর্শন করেছে। পরিদর্শনে বিভিন্ন কারখানায় এসওতে দাম উল্লেখ না করা, উৎপাদন কমিয়ে রাখা, সরবরাহে গাফিলতি, খুচরা মূল্য বেশি প্রিন্ট করে রাখাসহ কিছু অনিয়ম পাওয়া গেছে। এ কারণে ব্যাখ্যা চেয়ে প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের তলব করা হয়েছে। তারা আগামী ৩০ মার্চ কার্যালয়ে উপস্থিত থেকে ব্যাখ্যা দেবেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit

Discussion about this post

এই সম্পর্কীত আরও সংবাদ পড়ুন

আজকের সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা

সংবাদ আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১