রেজি তথ্য

আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

চট্টগ্রামে আখতারুজ্জামান সেন্টারে নিম্ম আয়ের মানুষের জন্যও থাকছে ঈদে কেনা কাটার সুযোগ

রিয়াজুর রহমান রিয়াজ:

চট্টগ্রামের নগরের প্রাণ কেন্দ্র আগ্রাবাদ আখতারুুজ্জামান সেন্টার মার্কেটটি চট্টগ্রামের প্রথম অত্যআধুনিক মার্কেট। মার্কেটটি উচ্চ বিলাসী মানুষের জন্য হলেও নিম্ম আয়ের মানুষেদেরও আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঈদ উৎসবকে কেন্দ্র করে সকল শ্রেণির পেশার মানুষের কেনা কাটার সুযোগ রয়েছে বলে মার্কেট কর্তৃপক্ষ জানান। মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে এক একটি ফ্লর কাপড়, জুতা, জুয়েলারী, মোবাইল, কম্পিউটার, শিশু খাদ্য সামগ্রী, রেস্টুরেন্টসহ বিভিন্ন আইটেম। আসন্ন ঈদ উৎসবকে কেন্দ্র করে আখতারুজ্জামান সেন্টারের প্রতিটি ফ্লরে দেখা গেছে ক্রেতাদের প্রচুর ভিড়। মার্কেট কর্তৃপক্ষ যাতে কোন দোকানদার অতিরিক্ত দামে কোন পণ্য বিক্রি না করে কোন ক্রেতা যাতে পছন্দের কাপড় কিনতে গিয়ে প্রতারণার শিকার না হয় সে জন্য মার্কেট কর্তৃপক্ষের রয়েছে বাড়তি সতর্কবার্তা। এছাড়া কোন ধরণের অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারী দিয়েছে ব্যবাসায়ী সমিতির নেতারা ।

আকতরুজ্জামান সেন্টার ব্যবাসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন জানান, মার্কেটটিতে ২৬০টি দোকানে প্রায় ২০০০ কর্মচারী রয়েছে। মার্কেটে প্রায় কয়েক হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ রয়েছে। ঈদ উপলক্ষে নতুনভাবে আরও কয়েকশ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে। ব্যবসায়ীরা প্রায় শত কোটি টাকা রাজস্ব প্রদান করে আসছে এবং মার্কেট কর্তৃপক্ষ প্রতি মাসে প্রায় ৫৫ লক্ষ টাকার বিদ্যুৎ বিল প্রদান করেন। করোনা মহামারিতে ব্যবসায়ীরা বড় ধাক্কা খেলেও এ ধাক্কা পুঁষে নিতে অনেক বছর সময় লাগবে বলে ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দরা জানান। মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা সালমা খাতুন নামের এক ক্রেতা জানান, প্রতি বছর এ মার্কেট থেকে ঈদের বাজার করে থাকি, কিন্তু করোনার কারণে গত দুই বছর আসতে পারেনি, এ বছরও ঈদের বাজার করতে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এসেছেন। আখতারুজ্জান সেন্টার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন জানান, গত দুই বছর করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের প্রণোদনা পাওয়ার কথা থাকলেও এ মার্কেটের কেউ পাননি। আগ্রাবাদে ফ্লাইওভার নির্মান কাজের কারণে মার্কেটে সড়কের বেহাল অবস্থা এবং যানজটের কবলে ক্রেতারা মার্কেটে আসতে সমস্যা হচ্ছে। ব্যবসায়ী এ নেতা বলেন, ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ ঈদ উপলক্ষে দিনের বেলায় বন্ধ রেখে রাতে কাজ করলে সড়কে ভোগান্তি যানজট নিরসন এবং সড়ক চলাচলের উপযোগী হবে। ফলে নগরবাসী উপকৃত হবে পাশপাশি ব্যবসায়ীরাও ব্যবসা করতে সুবিধা পাবে বলে তিনি জানান। ব্যবসায়ী সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহমুদুল হক মাহমুদ জানান, এ বছর ব্যবসায়ীরা আশার স্বপ্ন দেখছে টানা দুটি বছর লক্ষ লক্ষ টাকা লোকসান দিয়েছে সবাই।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit

Discussion about this post

এই সম্পর্কীত আরও সংবাদ পড়ুন

আজকের সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা

সংবাদ আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০