রেজি তথ্য

আজ: বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

চন্দনাইশে ছাত্রলীগ কর্মী জাহেদ হত্যায় থানায় মামলা দায়ের

চন্দনাইশ প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলায় ছাত্রলীগ কর্মী খুনের হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। ২০ মে রাত ৮টায় হত্যার শিকার ছাত্রলীগ কর্মী জাহিদুল ইসলাম (১৭), এর পিতা: জাহাঙ্গীর আলম হত্যা মামলাটি দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নিহত জাহিদুল ইসলাম গাছবাড়ীয়া সরকারি কলেজের ১ম বর্ষের অধ্যায়নরত ছাত্র। সে এলাকার দীর্ঘদিন যাবৎ নব্য মাদক ব্যবসায়ী ও খারাপ প্রকৃতির কাজে লিপ্ত ও বিপদগামী ছেলেদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর ছিল। মদ বিক্রয় এবং খারাপ প্রকৃতির লোকজন জাহেদুল ইসলাম কর্তৃক বাধাগ্রস্থ হওয়ায় তার বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা কান্ডের পরিকল্পনা গ্রহণ করেন।

ঘটনার দিন উপজেলার পৌরসভাস্থ ৬নং ওয়ার্ডে কুলিম্মা পাড়াস্থ গিয়াস উদ্দীন জাহিদুল ইসলামকে দাওয়াত দিলে,তার দুই বন্ধু রায়হান হোসেন সানি, ইয়াছিন আরফাত সাগরকে নিয়ে দাওয়াত খেতে যাওয়ার পথে ৬নং ওয়ার্ড কুলিম্মা পাড়া ব্রিজের উপর পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা আট দশ জনের কিশোর গ্যাংয়ের একটি দল তাদের বহনকারী সিএনজি থামিয়ে এলোপাতারি চুরিকাঘাত করেন।

এসময় তারা মারাত্মক আহত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে শোর চিৎকার করলে স্থানীয়রা ঘটানাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রথমে চন্দনাইশ হাসপাতাল ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার দিন রাত ১১টার সময় জাহিদুল ইসলামকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন।

এ রিপোট লেখা পর্যন্ত অপর দুইজন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। জাহিদুল ইসলাম উপজেলার পৌরসভাস্থ ৭নং ওয়ার্ডে চৌধুরী পাড়ার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে বলে জানা যায়। এ ব্যাপারে ৭জনকে এজাহার নামীয় আসামী অজ্ঞাত ৭/৮ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয় ( মামলা নং ১৫ তা ২০/৫/ ২০২২) ।

আসামী গ্রেপ্তারের সুবিধাত্বে চন্দনাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন আসামীদের নাম প্রকাশে অপারাগতা প্রকাশ করেন। তবে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন,আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান সার্বক্ষণিক অব্যাহত আছে।
উল্লেখ্য:- ২০ মে রাতে খলিফা পুকুর মসজিদ মাঠে এলাকাবাসীর উদ্যোগে জাহিদুল ইসলাম এর খুনিদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে শান্তিপূর্ণভাবে আলোচনা সভা ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় উপস্থিত আনোয়ারা সার্কেল এএসপি হুমায়ূন কবির,থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন,আ’লীগ নেতা ওবায়দুল আলম চৌধুরী বাহাদুরের সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে,সমাজ আলহাজ্ব আয়ুব আলী চৌধুরী,আ’লীগ নেতা শেখ টিপু চৌধুরী,মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী,এড.ইলিয়াস কাজলীল চৌধুরী, ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী,কাউন্সিলর মোজাম্মেল হক চৌধুরী, নুরুল ইসলাম চৌধুরী বাচা, চন্দনাইশ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, যুবলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী,লোকমান চৌধুরী, চন্দনাইশ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মারজাদুল ইসলাম চৌধুরী আরমান,ছাএলীগ শেফাতুনূর চৌধুরী, আমির হোসেন,মাসুদ চৌধুরী,আবিদুল ইসলাম চৌধুরীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit

Discussion about this post

এই সম্পর্কীত আরও সংবাদ পড়ুন

আজকের সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা

সংবাদ আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১