রেজি তথ্য

আজ: বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সিদ্দিক আহমেদের জ্ঞান আদর্শ অনুসরণ করলে নতুন প্রজন্ম পাবে আলোর পথ -ড. অনুপম সেন

রাউজান প্রতিনিধি :

প্রখ্যাত সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সিদ্দিক আহমেদ ফাউন্ডেশনের নবগঠিত কমিটির শপথ গ্রহণ ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে একুশে পদক পাওয়া সমাজবিজ্ঞানী প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. অনুপম সেন বলেছেন, জ্ঞানের আলো জ্বালানোর একজন দক্ষ কারিগর ছিলেন প্রয়াত সাংবাদিক সিদ্দিক আহমেদ। তাঁর জ্ঞান আদর্শ অনুসরণ করলে নতুন প্রজন্ম পাবে আলোর পথ। তিনি আরও বলেন, তাঁকে চট্টগ্রামের সক্রেটিস বলা হলেও ভুল হবে না। সমাজ ও রাষ্ট্রে যেসব মানুষ আলোর পথ দেখায় তাঁদের মধ্যে সিদ্দিক আহমেদ একজন। তিনি কবি, গল্পের লেখক, সাংবাদিক ও অনুবাদক ছিলেন। তাঁর জ্ঞানের পিপাসা ছিল অসীম। বই ও অসাধারণ সাহিত্য জ্ঞানের অধিকারী ছিলেন তিনি।
শুক্রবার (৩রা জুন) সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের রাউজানের নোয়াপাড়া পথেরহাটের দি কিং অব নোয়াপাড়া মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
কোরআন তেলাওয়াত, গীতা ও ত্রিপিটক পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সুচনা হয়। এরপর জাতীয় সংগীত পরিবেশন শেষে শুরু হয় আলোচনা সভা। বক্তব্যের একফাঁকে উপস্থাপন করা হয় সিদ্দিক আহমদের সাংবাদিকতা ও সাহিত্য জীবনের নানা বিষয়ের উপর নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্র।
ফাউন্ডেশনের সভাপতি প্রয়াতের ভাই মুহাম্মদ শামীম আল আজাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন প্রয়াত সাংবাদিক সিদ্দিক আহমেদের ছেলে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এডভোকেট সাইফুর রহমান সিদ্দিকী।
এতে উদ্বোধকের বক্তব্য দেন রাউজানের সংসদ সদস্যের ছেলে তরুণ রাজনীতিক ফারাজ করিম চৌধুরী। ফারাজ করিম চৌধুরী বলেন, তরুণ প্রজন্ম মনে করে দেশে রাজনীতিকরাই সবচে বেশী আলোকিত বা পরিচিত। এর বাইরেও যে, আরও যে বড় বড় গুণি মানুষ আছেন তা মানুষকে জানতে আরনপরিচিত করতে হবে। সিদ্দিক আহমেদ এরকম একজন গুণি মানুষ ছিলেন। তিনি অনুপ্রেরণা পাওয়ার মত একজন সাংবাদিক ছিলেন। তিনি আরও বলেন, ভালো কাজ করতে গেলে বাধা আসে। ভালো কাজ করলে এরকম হয়। তবুও এগিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, শক্তি দেখানোর চেয়ে মেধার শক্তি ব্যবহার করার সময় এখন। এরকম পরিবর্তন আনতে হবে রাজনীতিতেও। তাহলে দেশের মানুষ আমাদের ভালোভাবে গ্রহণ করবে।
অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন মাসিক আন্দরকিল্লা পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক মুহাম্মদ নুরুল আবসার, রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হারুন, নোয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ বাবুল মিয়া, পশ্চিম গুজরা ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন আরিফ, বাগোয়ান ইউপি চেয়ারম্যান ভুপেশ বড়ুয়া, পূর্বগুজরা ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন আহমেদ, পাহাড়তলী ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ রোকন উদ্দিন, উরকিরচর ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আব্দুল জব্বার, দক্ষিণ রাউজান পূজা কমিটির সভাপতি প্রকাশ শীল, সাধারণ সম্পাদক ম্যালকম চক্রবর্ত্তী। বক্তব্য দেন সংগঠনের সমন্বয়ক উপাধ্যক্ষ সৈয়দ উদ্দিন আহমেদ ও জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মুহাম্মদ মহিউদ্দিন ইমন, সৈয়দ আজম রাশেদ প্রমুখ।
এতে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা জাফর আহমেদ, জাহাঙ্গীর সিকদার, শফিউল আলম,আরিফুল আলম, প্রধান শিক্ষক জানে আলম, বিলাশ কান্তি দাস,আবু মুসা সিদ্দিকী, নাসরিন আকতার, আবদুল গফুর, মোহাম্মদ নুর নবী, নান্টু বড়ুয়া, আহমেদ সৈয়দ, বেলাল উদ্দিন, রমজান আলী, আল মামুন, আনোয়ার হোসেন শাওন, নেজাম উদ্দিন রানা, মোহাম্মদ বেলাল, আবদুল্লাহ আল নোমান প্রমুখ।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit

Discussion about this post

এই সম্পর্কীত আরও সংবাদ পড়ুন

আজকের সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা

সংবাদ আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১