রেজি তথ্য

আজ: শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

আমরা ৫০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবো: শেখ সেলিম

ঢাকা ব্যুরো:

বিএনপিকে উদ্দেশ্যে করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, ‘ওরা বলে আওয়ামী লীগকে টেনে নামাবে। আওয়ামী লীগের টানা আরাম্ব করছে ২০০৯ সাল থেকে। তোরা যত টানবি আমাদের ক্ষমতা ততো বাড়বে। আজকে ২২ সালে আইছি আর একবার টান দিলে একবারে ৫০ সালে চইলে যাবো। আমরা ৫০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবো। ওরা ততদিন থাকবে না।

রবিবার (১৯জুন) বিকালে সংসদ অধিবেশনে প্রস্তাবিত ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন প্রবীণ এই সংসদ সদস্য। এসময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন চলছিল। সংসদে সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত ছিলেন।
ড. ইউনুস সম্পর্কে বলতে গিয়ে শেখ সেলিম বলেন, উনি কিসের ডাক্তার ? এই ইউনুস ষড়যন্ত্র করে বিশ^ ব্যংককে পদ্মা সেতু নির্মানে অর্থ দিতে বাঁধা দেন। কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা জেদ করে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু করলেন, যা ২৫ জুন উদ্বোধন হবে। তিনি বলেন ড. ইউনুসের বিরুদ্ধে অর্থ পাচার মামলা করার জন্য দুদককে বলবো। ইউনুস কিভাবে ক্লিনটন ফাউন্ডেশনে যে অর্থ দান করেছেন ? তা কিভাবে তিনি দেশ থেকে পাচার করলেন, এ টাকার উৎস কি তা দুদককে তদন্ত করার আহ্বাণ জানান তিনি।
শেখ সেলিম বলেন, বিএনপি গণতন্ত্র আইনের শাসন মানবাধিকারের কথা বলে। ‘৭৫ এর ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ শিশু নারীকে হত্যা করেছে এবং বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার বন্ধ, জেল হত্যার বিচার বন্ধ করছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করছে ২২ হাজার যুদ্ধাপরাধী তারা জেলে ছিল তাদের বিচার হচ্ছিল। সেই ২২ হাজার ৫০০ যুদ্ধাপরাধীকে জিয়াউর রহমান মুক্ত করে সাধারণ ক্ষমা করে দেয়। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের বিচার বন্ধ করতে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ দিয়েছিল নিজেকে রক্ষা করার জন্য। জিয়াউর রহমান সংবিধান স্থগিত করে সামরিক অধ্যাদেশ ফর্মান দিয়ে দেশ পরিচালনা করেছে তাদের মুখে গণতন্ত্র? কিসের গণতন্ত্র? সামরিক গণতন্ত্র? এই দেশে আর কোন দিন সামরিক জিয়াউর রহমানের গণতন্ত্র হবে না। বঙ্গবন্ধু কন্যা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে।
বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক দাবির জবাবে শেখ সেলিম বলেন, ওরা তত্ত্বাবধায়ক সরকার জাতীয় সরকারের কথা বলে। আগামী নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্বের গণতান্ত্রিক দেশে যেমন সংবিধান অনুসারে হয় যেমন ব্রিটেন আমেরিকা কানাডা অস্ট্রেলিয়া ভারত এবং অন্যান্য দেশে যেমন নির্বাচন হয় বাংলাদেশেও সেই ভাবেই নির্বাচন হবে। আর কোন দিন জিয়াউর রহমানের হ্যাঁ না ভোট হবে না। আজিজ মার্কা নির্বাচন কমিশনও আর হবে না। ইয়াজ উদ্দিন মার্কা তত্ত্বাবধায়ক সরকারও আর হবে না। ওরা কি না করতে পারে।
তিনি আরও বলেন, ওরা একদিন বললো এক নম্বর নারী মুক্তিযোদ্ধা খালেদা জিয়া। ঢাকা ক্যান্টমেন্টে কর্ণেল জানজুয়ার সঙ্গে ছিল। আমাদের মুক্তিযোদ্ধা রফিক সাহেব আছে সেই খানে খালেদা জিয়ার ৯ মাস খাটলো সে হলো নারী মুক্তিযোদ্ধা। ৯৩ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচার করার কথা ছিল জানজুয়া তারমধ্যে একজন। জানজুয়া যখন মারা যায় খালেদা জিয়া তখন প্রধানমন্ত্রী সেই জানজুয়াকে সমস্ত কূটনৈতিক নীতি নৈতিকতা বর্হিভুত হয়ে তাকে শোক প্রস্তাব পাঠায় এই হলো বিএনপির চরিত্র।
ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, বাজেট নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্ণর ড. ফরাসউদ্দিন বলেছেন প্রস্তাবিত বাজেট বিত্তবান ব্যবসায়ী, মুনাফাভোগী ও অর্থপাচারকারীদের স্বার্থ দেখা হয়েছে। সানেমের নির্বাহী পরিচালক ড. সেলিম রায়হান বলেছেন, বাজেটে সরকার যে সব খাতে অগ্রাধিকার দিয়েছে সেটা তার ঘোষিত নীতির সাথে সাংঘর্ষিক। বাজেট ব¯ুÍতঃ বৃহৎ ব্যবসা বান্ধব। সামাজিক সুরক্ষা যাতে বাজেট বরাদ্দ মাত্র ২ শতাংশ বেড়েছে। ড. আতিয়ার রহমান দ্রব্য মূল্যের চাপে থাকা এই বরাদ্দে অবাক করেছে। বিশেষ করে ওএমএস-এ বরাদ্দ ২২৩ কোটি টাকা কমে যাওয়া এবং অতি দরিদ্রের কর্মসৃজন কর্মসূচির বরাদ্দ ৯৫ কোটি টাকা কমে যাওয়াটা এ সময়ের জন্য অসামঞ্জস্যপূর্ণ।
বাজেটের ওপর অরো বক্তব্য রাখেন, এমপি রুবিনা আক্তার, এস এম শাহজাদা, এনামুল হক, জাকিয়া নূর, জহিরুৃল হক ভুঞা মোহন, মো. হাবিব হাসান, তারভীর সাকিল জয়, উম্মে কুলসুম স্মুতি, তাহমিনা বেগম ,রত্মা আহমেদ, তামন্না নুসরাত বুবলী, মাহফুজুর রহমান, মো. শাহিদুজ্জামান, প্রমুখ।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit

Discussion about this post

এই সম্পর্কীত আরও সংবাদ পড়ুন

আজকের সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা

সংবাদ আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১