রেজি তথ্য

আজ: মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

খাগড়াছড়ি ৫ উপজলায় ইউপিডিএফ’র ডাকা আধাবলা সড়ক অবোরাধ পালিত

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি :

খাগড়াছড়ির ৫ উপজলায় ইউনাইটড পিপলস ডেমোক্রটিক ফ্রটর (ইউপিডিএফ) ডাকা আধাবলা সড়ক অবরাধ পালিত হয়ছ। অবোরাধ চলছে বেলা ১২টা পর্যন্ত ঢাকা ও চট্টগ্রামর সঙ্গে যান চলাচল বন্ধ ছিলো।
মানিকছড়িত ইউপিডিএফ সদস্য হ্লাচিং মং মারমা (উষা) হত্যার প্রতিবাদ এবং খুনীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিত ভোর সাড় ৫টা থেকে এই সড়ক অবোরাধ কর্মসূচি পালন করে ইউপিডিএফ। খাগড়াছড়ির গুইমারা, মাটিরাঙ্গা, মানিকছড়ি, রামগড় ও লক্ষীছড়ি চলা অবোরাধ সংঘাত এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়।
সংবাদ সংগ্রহ ও পত্রিকাবাহী যানবাহন, অ্যাম্বুলন্স ও ফায়ার সার্ভিসর গাড়িসহ অন্যান্য জরুরি কাজ নিয়াজিত যানবাহন অবোরাধর আওতামুক্ত ছিলা বল জানিয়েছেন ইউপিডিএফ।
কোথাও কোনো বড় ধরনের অপ্রীতিকর সংঘাতের খবর পাওয়া যায়নি। তবে কিছু কিছু যান সিএনজি অটারিকশা ভাঙচুরর ঘটনা ঘটে বল জানা যায়। অবোরাধর শুরুতেই ভোর খাগড়াছড়ি-রামগড় সড়ক ও খাগড়াছড়ি-মানিকছড়ি ধর্মঘর এলাকায় সড়ক টায়ার জ্বালায় এবং গাছ ফেলিয় রাখে ইউপিডিএফ কর্মীরা। মানিকছড়ি- লক্ষীছড়ি সড়ক সিএনজি-অটারিক্মা ভাংচুরর ঘটনা ঘটেছে বলে জানান স্হানীয় জনসাধারণ।
গুইমারা থানার পুলিশ এসআই সুজন কুমার চক্রবর্তী বলেন, সকাল থেকে আমরা সর্তক অবস্থানে ছিলাম। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সেব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করছে পুলিশ বাহিনী। ঢাকা থেকে ছেরে আসা গাড়িগুলো ভোরে পুলিশি পাহারায় নিরাপদ পৌঁছে দেওয়া হয়। অবোরাধ পালনে ইউপিডিএফ’ বিবৃতি দেয় খাগড়ছড়ির মানিকছডড়িত সেটেলার কর্তৃক ইউপিডিএফ সদস্য হ্লাচিং মং মারমা (ঊষা)-কে হত্যার প্রতিবাদ এবং হত্যাকারীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে খাগড়াছড়ির ৫ উপজলায় ইউপিডিএফ’র ডাকা আধাবলা সড়ক অবোরাধ কর্মসূচি সফল ও শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হয়েছে।
বুধবার (৫ এপ্রিল ২০২৩) সকাল সাড়ে ৫টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এই অবোরাধ কর্মসূচি পালিত হয়।
ইউনাইটড পিপলস ডেমোক্রটিক ফ্রট (ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সংগঠক অংগ্য মারমা এক বিবৃতিতে আধাবলা সড়ক অবরাধ কর্মসূচি সফল করার জন্য জেলার সকল যানবাহন মালিক সমিতি, শ্রমিক সংগঠনসহ সর্বস্তরর জনসাধারণর প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলন, হ্লাচিং মং মারমা (ঊষা)-কে যেভাব নির্যাতন চালিয় হত্যা করা হয়েছে তা মধ্যযুগীয় নৃশংসতাকেও হার মানিয়েছে। এমন নৃশংস ঘটনার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো সকলের নৈতিক দায়িত্ব। ভবিষ্যত যাতে এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে সেজন্য তিনি সবাইক সতর্ক থাকার আহবান জানান। ইউপিডিএফ নেতা অবিলম্বে হ্লাচিং মং মারমাক হত্যার সাথ জড়িতদের গ্রফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
উল্লখ্য, গত রবিবার মানিকছড়ির যোগ্যছালা ইউনিয়নের উলুপাড়া এলাকায় সাংগঠনিক কাজ গেলে সেটেলার বাঙালিরা ইউপিডিএফ সদস্য হ্লচিং মং মারমাকে ধরে অমানুষিকভাবে মারধরে করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে পুলিশী হেফাজতে তাকে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতাল ভর্তি করা হলে সেখান তিনি মারা যান বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit

Discussion about this post

এই সম্পর্কীত আরও সংবাদ পড়ুন

আজকের সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা

সংবাদ আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১